ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শুক্রবার   ২২ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৬ ১৪২৮

  • || ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দৈনিক নেত্রকোনা

জরুরি হটলাইনে ফোন দিয়ে ত্রাণ বিতরণে বিঘ্ন সৃষ্টি বিএনপি নেত্রীর

দৈনিক নেত্রকোনা

প্রকাশিত: ৫ এপ্রিল ২০২০  

দেশের এমন দুর্যোগপূর্ণ সময়ে সরকারের ত্রাণ বিতরণ কাজে বিঘ্ন সৃষ্টি করছে বিএনপির একটি সংঘবদ্ধ চক্র। এরই অংশ হিসেবে সরকারি সেবা বাতায়ন ৩৩৩ নম্বরে ফোন দিয়ে সহযোগিতা চাওয়ার নামে চট্টগ্রামে বিভ্রান্তি সৃষ্টির অপচেষ্টা করেছেন বিএনপির এক নারী নেত্রী।

জানা গেছে, জরুরি নম্বরটিতে ফোন দিয়ে বিএনপি নেত্রী জানান, তিনদিন ধরে তার ঘরে খাবার নেই। সহযোগিতায়ও কেউ এগিয়ে আসেনি। তাই নিরুপায় হয়ে সাহায্য চাইছেন। এরপর ঠিকানা অনুসারে জরুরি ভিত্তিতে ত্রাণও পাঠানো হয়। কিন্তু ত্রাণ দিতে গিয়ে দেখা যায়, ওই নারীর পরিবার ত্রাণ পাওয়ার উপযোগী নয়।

বিষয়টি সন্দেহজনক হওয়ায় পুলিশ সেখানে গিয়ে তদন্ত শুরু করে। তদন্তে বেরিয়ে আসে, ওই নারী মূলত চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের একজন নেত্রী। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা যায়, মূলত বিএনপির লন্ডন অফিস থেকে ত্রাণ কাজে নানাভাবে বিঘ্ন সৃষ্টি করার জন্য নির্দেশনা রয়েছে। তবে চট্টগ্রাম পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, অধিকতর তদন্তের স্বার্থে এই মুহূর্তে ওই নারীর পরিচয় প্রকাশ করা যাচ্ছে না। তার স্বামীর নাম মুনির হোসেন। তিনিও বিএনপির নেতা। তারা ভাটিয়ারি ইউনিয়নের বাসিন্দা।

এদিকে শুক্রবার (৪ মার্চ) এই ঘটনার পর ভাটিয়ারী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন বলেন, ওই নারীর স্বামী স্থানীয় বিএনপির নেতা। তিনি যথেষ্ট সচ্ছল। চাইলেই খেটে-খাওয়া মানুষকে কয়েক বস্তা চাল দিতে পারেন। সরকারের কাজে শুধু বিভ্রান্তি সৃষ্টি করার জন্যই ফোন করে ত্রাণ চেয়েছেন ওই নারী।

চেয়ারম্যান নাজিম উদ্দিন আরও বলেন, বিএনপি শুরু থেকেই চট্টগ্রামে ত্রাণকার্য্যে নানাভাবে বিঘ্ন সৃষ্টি করছে। এর আগে দরিদ্র সেজে ত্রাণ নিয়ে অনেকে তা বিক্রি করেছেন।