ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শনিবার   ২৩ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৮ ১৪২৮

  • || ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দৈনিক নেত্রকোনা

নেত্রকোনায় শিশুর ভাঙা পা বাদ দিয়ে ভালো পায়ে প্লাস্টার!

দৈনিক নেত্রকোনা

প্রকাশিত: ১১ অক্টোবর ২০১৯  

নেত্রকোনার খালিয়াজুড়িতে চার বছরের এক শিশুর ভাঙা পা রেখে ভালো পায়ে প্লাস্টার করা হয়েছে। বুধবার বিকেলে মোহনগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এদিন বিকেলে উপজেলার চাকুয়া ইউপির পাথরা গ্রামের পরিতোষ সরকারের শিশু সন্তান প্রীতমের ডান পা ভেঙে যায়। এ অবস্থায় ভাঙা পা প্লাস্টারের জন্য জরুরি বিভাগে পাঠান স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক সুবীর সরকার।

কিন্তু জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত চিকিৎসক তানভীর হাসান উপস্থিত না থাকায় ওয়ার্ড বয় জামাল মিয়া প্রীতমের ডান পায়ের চিকিৎসা করান। সেই সঙ্গে শিশুটির ভাঙা পা রেখে ভালো পায়ে প্লাস্টার করে দেন। পরে শিশুটিকে নিয়ে বাসায় চলে যান তার বাবা।

রাতে প্রীতমের অবস্থার অবনতি হয়। পরে বৃহস্পতিবার সকালে তাকে মোহনগঞ্জ হাসপাতালে নেন তার বাবা পরিতোষ সরকার। পরে জরুরি বিভাগে নিলে চতুর্থ শ্রেণির এক কর্মচারী প্রীতমের ভালো পায়ের প্লাস্টার খুলে ভাঙা পায়ে প্লাস্টার করে দেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা নুর মোহাম্মদ শামছুর আলম এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, শিশুটিকে ভুল চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। শিগগিরই প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।