ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শনিবার   ২৩ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৮ ১৪২৮

  • || ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দৈনিক নেত্রকোনা

নেত্রকোনা-২

জাসদের প্রার্থী অধ্যাপক মোখলেছুর মুক্তাদির

দৈনিক নেত্রকোনা

প্রকাশিত: ২৭ নভেম্বর ২০১৮  

নেত্রকোনা-২ (সদর-বারহাট্টা) জাসদ থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন কেন্দ্রীয় জাসদের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. মোখলেছুর রহমান মুক্তাদির। তার বাড়ি সদর উপজেলার আমতলা ইউনিয়নের শিবপ্রসাদপুর গ্রামে।

জাসদের কেন্দ্রীয় এই নেতা স্কুল জীবনে ১৯৬৯ সালে দেশ ও কৃষ্টি বই বাতিলের দাবিতে মিছিলে অংশ নেয়ার মাধ্যমেই রাজনীতিতে হাতে খড়ি। সে থেকে ’৬৯-এর গণঅভ্যুত্থান এবং ’৭১-এর মুক্তিযুদ্ধ এবং স্বাধীনতার জন্য গ্রামেগঞ্জে প্রতিটি মিছিল মিটিংয়ে অংশগ্রহণের মাধ্যমে শুরু হয় রাজনীতিতে সক্রিয় অংশগ্রহণ।

শুধু মিছিল মিটিংই নয়, সে সময় মুক্তিকামী মানুষসহ মুক্তিযোদ্ধাদের বিভিন্নভাবে সাহায্য ও সহযোগিতা করেন এই নেতা। পরে ১৯৮২ সালে ছাত্রলীগ স্যার এফ রহমান হল (ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়) শাখার সাধারণ সম্পাদক এবং ১৯৮২ সালে ডাকসু নির্বাচনে স্যার এফ রহমান হল শাখার নির্বাচিত সাহিত্য সম্পাদক।

১৯৮৩ সালে ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় সম্মেলনে প্রথম কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাচিত যুগ্মসাধারণ সম্পাদক। ১৯৮৭ সালে ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রথম সহ-সভাপতি এবং ১৯৯১ সালে ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যকরী সভাপতি নির্বাচিত হন।

১৯৯০ সালে সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্যের ছাত্র গণভ্যুত্থানের অন্যতম ছাত্র নেতা বর্তমানে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্মসাধারণ সম্পাদক এবং ১৪ দলের কেন্দ্রীয় নেতা।

অধ্যাপক মোখলেছুর রহমান মুক্তাদির এ আসনে ২০০৮ সাল থেকে মনোনয়নপ্রত্যাশী হয়ে কাজ করছেন। এলাকায় গণসংযোগ, মতবিনিময় করে যাচ্ছেন। নির্বাচনী এলাকার রাস্তাঘাট, ব্রিজ-কালভার্ট, শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে ব্যাপক অংশগ্রহণ রয়েছে এই নেতার। অধ্যাপক মুক্তাদির বলেন, দেশ আর দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছি।

রাজনীতি করতে গিয়ে অনেক অত্যাচার নির্যাতন সহ্য করতে হয়েছে। দেশের ক্রান্তিকালে নির্যাতিত ও নিপীড়িত মানুষের পাশে ছিলাম, এখনও আছি। ১৪ দলীয় ঐক্যজোটের শরিক দল হিসেবে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছি। আশা করি মনোনয়ন পাব।