ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শনিবার   ২৩ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৮ ১৪২৮

  • || ১৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দৈনিক নেত্রকোনা

লড়াই সংগ্রামে

হাওরবাসীর জীবন মান উন্নেয়নে জলি তালুকদার

দৈনিক নেত্রকোনা

প্রকাশিত: ১১ নভেম্বর ২০১৮  

হাওরবাসীর জীবন মান উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন কমরেড জলি তালুকদার। তিনি সংসদীয় আসন নেত্রকোনা ৪ আসনের (মদন-মোহনগঞ্জ-খালিয়াজুরী) সিপিবি’র প্রার্থী হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে মাঠে কাজ করছেন। হাওরের সন্তান হিসেবে তিনি অবহেলিত জনপদের পাশে ইজারাপ্রথা বাতিলের দাবীতে লাগাতার আন্দোলন করে যাচ্ছেন। ’জাল যার জলা তার’ এই নীতি বাস্তবায়নে দেশের বিভিন্ন ফোরামেও কথা বলেছেন। জেলে সহ কৃষকদের নিয়ে মাঠ পর্যায়ে অধিকার আদায়ে নিরলস ভাবে কাজ করে এবার হাওরাবাসীর ফসল ডুবির পর এক বছরের জন্য জলমহাল উন্মুক্ত রাখার আন্দোলন করেও সফল হয়েছেন। তিনি ময়মনসিংহ জেলা ছাত্র ইজনিয়নের সভাপতি ও পরবর্তীতে কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক থেকে শুরু করে শ্রমিক আন্দোলনের সাথে যুক্ত হন। এরপর একে একে শ্রমিকদের ন্যায্য মজুরী আদায়ে শ্রমিক আন্দোলনে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা রাখেন। যার জন্যে অসংখ্যবার গ্রেফতারও হন। পাশাপাশি জেলও খেটেছেন তিনি। বর্তমানে গার্মেন্টস শ্রমিক ট্রেড ইউনিয় কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় কমিউনিস্ট পার্টির ৩ জন সম্পাদকের মধ্যে অন্যতম তিনি। শ্রমিক আন্দোলন ও কমিউিনিস্ট পার্টির বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করতে তিনি বিশেষ প্রতিনিধি হিসেবে বিশ্বের জার্মানি, ফ্রান্স, ভেনিজুয়েলা, দক্ষিণ আফ্রিকা, নেপাল ও ভারত সহ বিভিন্ন দেশ ভ্রমন করেন। শ্রমিকদের অধিকার আদায়ে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় অসংখ্য প্রবন্ধ লিখেছেন। তিনি মনে করেন এলাকাবাসীর ভাগ্যোন্নেয়নে কাজ করার জন্য অনেক সুযোগ রয়েছে স্থানীয় সাংসদদের। যেমন হাওরাঞ্চল দেশের অন্যতম একটি মিঠা পানির আঁধার। এই পানিকে সঠিকভাবে কাজে লাগালে যেমনি দরিদ্র জেলে ও কৃষক শ্রেনী বাচঁবে, তেমনী সরকার ও নেত্রকোনার উন্নয়নে রাজস্ব বাড়বে। এমন প্রাকৃতিক সম্পদ প্রভাবশালীদর দখলমুক্ত হলে বাচঁবে আপামর হাওরবাসী। তাই তিনি হাওরের প্রতিটি ঘরকে নিজের ঘর মনে করে লড়াই সংগ্রাম করে যাচ্ছেন। সেই সাথে হাওরবাসীও নিজ উদ্যোগে নিজেরদের অর্থায়নে এমন একজন প্রার্থীকে মাঠে নামাতে চান বলে ঐক্যমত পোষন করে দীর্ঘদিন ধরে গ্রামে গ্রামে হাটসভা উঠান বৈঠক করে গেছেন তারা। সাধারন হাওরবাসীও কাস্তে প্রতিকের এই প্রার্থীকে এগিয়ে নিতে চান।