ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’

শুক্রবার   ১৭ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৪ ১৪২৬   ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

শপাহলিক ডিজিজ থেকে মুক্তির সহজ কিছু উপায়

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪ জানুয়ারি ২০২০  

কেনাকাটা করতে কার না ভালো লাগে। উৎসব আয়োজন বা যে কোনো কিছুতেই পোশাক থেকে গয়না সবই কেনা চাই। তবে কেনেকাটার প্রতি পুরুষদের থেকে নারীদের ঝোঁক বেশি থাকে। এটিকে বিশেষজ্ঞরা বলছেন শপাহলিক ডিজিজ।  

সাম্প্রতিক এক গবেষণা বলছে, যারা এভাবে অনেক কেনাকাটা করেন, তারা আসলে মানসিক বিকারগ্রস্ত। ডিপ্রেশনের শিকার। আর তাই নিজেদের অজান্তেই তারা এতো কেনাকাটা করেন। একে বলা হচ্ছে বাইং-শপিং ডিসঅর্ডার। তবে এ থেকে আপনি মুক্তি পেতে পারেন খুব সহজেই। জেনে নিন উপায়গুলো-

 

 

নিজেকে বলুন সময় নেই: প্রথমেই আপনাকে যেটি করতে হবে তা হলো দৃঢ় সংকল্প করুন। আপনার যদি এমন কেনাকাটার ঝোঁক থাকে; তখন নিজের মনকে বোঝাতে থাকুন আপনার হাতে এখন শপিং মলে যাওয়ার সময় নেই। তবে যদি একবার মলেই পৌঁছেই যান তাহলে আর রক্ষা নেই। অহেতুক ব্যয় থেকে নিষ্কৃতি পাবেন না। 

আবেগ নিয়ন্ত্রণ করুন: আবেগকে নিয়ন্ত্রণ করুন। এটি আপনার অহেতুক ব্যয়কে নিয়ন্ত্রণে রাখবে। যখনই আপনি কিছু কিনতে চাচ্ছেন অথচ তা এই মুহূর্তে আপনার প্রয়োজন না। তবে তা কেনা থেকে বিরত থাকুন।

কার্ড নয় ক্যাশ রাখুন: আপনার পার্সে কার্ড না রেখে নগদ টাকা রাখুন। এতে করে যে কোনো জিনিস কিনতে গেলে আপনার পার্স আপনাকে আটকে দিতে পারবে। প্রথমে এভাবে চলতে কষ্ট হলেও কিছুদিন পর অভ্যাস হয়ে যাবে। 

শপিংয়ের বিকল্প ভাবুন: অন্য কিছু দিয়ে শপিংয়ের বিকল্প ভাবুন। কারণ এই আসক্তি আপনার অনেক ক্ষতির কারণ হতে পারে। আর তাই শপিংয়ের বিকল্প ভাবুন। কিছু কেনার আগে চিন্তা করুন আপনার এমন কিছু আছে কিনা যা দিয়ে এবারের মতো কাজ চালিয়ে নিতে পারবেন। 

পরামর্শ করুন: আপনার প্রিয়জন এবং নিকটতম বন্ধুর সঙ্গে পরামর্শ করুন। তাদের কাছ থেকে আপনি সঠিক পথের সমর্থন পাবেন। তাই আপনার অহেতুক কেনাকাটা বা এই আসক্তি থেকে বিরত থাকতে প্রিয়জনের সাহায্য নিন। 

সূত্র:টাইমস অব ইন্ডিয়া  

দৈনিক নেত্রকোনা
দৈনিক নেত্রকোনা
এই বিভাগের আরো খবর