ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’

শুক্রবার   ১৫ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ১ ১৪২৬   ১৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

৭৯১

ফেসবুকে ‘আলবিদা,’ দুদিন পর লাশ তরুণ-তরুণী

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৬ জুলাই ২০১৯  

ঢাকার ক্যামব্রিয়ান কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী প্রান্ত দেওয়ানজি হিমেল (১৮)। ২৩ জুলাই সকাল ৭টা ৩৩ মিনিট। ফেসবুকে নিজের ওয়ালে লিখেছিলেন- ‘আলবিদা’। এই স্ট্যাটাসের পর থেকেই ‘নিখোঁজ’ হন তিনি।

একই দিন বিকালে ‘নিরুদ্দেশ’ হন রাঙামাটি লেকার্স পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের উচ্চ মাধ্যমিকের বাণিজ্য বিভাগের ছাত্রী তাহফিমা খানম তিন্নি (১৮)। আর এর দুদিন পর গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে বরগাং এলাকায় কাপ্তাই হ্রদের পানিতে এ দুজনের মরদেহ দেখেন স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।

দুই ধর্মের দুই তরুণ-তরুণী প্রেমে জড়িয়ে পড়ায় দুই পরিবারই ছিল বিব্রত। ফলে এটি ‘হত্যা’ না ‘আত্মহত্যা’ এ নিয়ে দেখা দিয়েছে ধূম্রজাল। তবে রাঙামাটির পুলিশ সুপার আলমগীর কবির বলেন, ‘তদন্তের পরই মৃত্যুর আসল কারণ জানা যাবে’।

জানা গেছে, হিমেল শহরের রিজার্ভ বাজারের ওষুধ ব্যবসায়ী ছোটন দেওয়ানজির ছেলে। চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার শিলক এলাকার শহীদ তালুকদারের মেয়ে তিন্নি রাঙামাটিতে এক স্বজনের বাসায় থেকে পড়াশোনা করছিলেন।

হিমেলের বাবা ছোটন দেওয়ানজী বলেন, নিখোঁজ হওয়ার পর থেকেই হিমেলকে খুঁজতে থাকি। আজ লাশ পেলাম। আমরা আসলে কিছুই জানতাম না। কিন্তু কেন এটি করল বুঝতে পারছি না।’

তিন্নির স্বজন নুরুল আলম বলেন, ও আমার বাসায় থেকে পড়াশোনা করত। কিন্তু হঠাৎ করেই এমনটি ঘটে যাবে বুঝতে পারিনি।

রাঙামাটির কোতোয়ালি থানার এসআই লিমন বোস বলেন, শুনেছি দুজনের মধ্যে প্রেম ছিল। ভাসমান মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছি। রিপোর্ট এলেই পরবর্তী আইনানুগ পদক্ষেপ নেব। তবে তাৎক্ষণিকভাবে ঘটনাস্থলে আত্মহত্যার কোনো আলমত পাওয়া যায়নি।

দৈনিক নেত্রকোনা
দৈনিক নেত্রকোনা
এই বিভাগের আরো খবর