ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিব ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শুক্রবার   ২৯ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৭

  • || ০৬ শাওয়াল ১৪৪১

দৈনিক নেত্রকোনা
৭৮

ডেঙ্গু নিয়ে তদন্তে বিচারিক কমিটি আবারও সময় চাইবে

দৈনিক নেত্রকোনা

প্রকাশিত: ১ মার্চ ২০২০  

ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়া নির্মূল করতে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থতার কারণ খতিয়ে দেখতে হাইকোর্টের নির্দেশনার পর গঠিত বিচারিক তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন দাখিলে আবারও সময় চেয়ে আবেদন করবে।

রোববার এ তথ্য জানিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অমিত দাশগুপ্ত।

তিনি জানান, প্রতিবেদন দাখিলে ১ মার্চ পর্যন্ত সময় ছিল। এর মধ্যে কমিটি জানিয়েছে তাদের আরও সময় লাগবে। তাই প্রতিবেদন দাখিলে আরও ১০ দিন সময় চেয়ে আবেদন করা হবে।

গত বছরের ১২ নভেম্বর ঢাকা জেলা জজের নেতৃত্বে দুই সদস্যের কমিটিকে বিষয়টি তদন্ত করতে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। কমিটির অপর সদস্য হলেন- স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিবের নিচে নয় এমন একজন কর্মকর্তা। এই কমিটিকে ১৫ জানুয়ারির মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করতে নির্দেশ দেয়া হয়েছিল।

পরে কমিটি দুই মাস সময় চেয়ে আবেদন করার পর গত ২১ জানুয়ারি হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চ প্রতিবেদন দাখিল করতে ১ মার্চ পর্যন্ত সময় দেন।

গত বছরের ৪ জুলাই স্বপ্রণোদিত এক আদেশে ঢাকা সিটিতে ডেঙ্গু-চিকুনগুনিয়াসহ এডিস মশা নির্মূল ও ধ্বংসে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দিয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। ওই আদেশের ধারাবাহিকতায় উক্ত আদেশ দেন।

এর আগে গত ১১ নভেম্বর হাইকোর্টের বিচারপতি তারিক-উল হাকিম ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার তৌফিক ইনাম টিপু। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার কাজী মাঈনুল হাসান।

মামলার শুনানিকালে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী মাইনুল হাসান আদালতকে জানান, ২০১৯ সালে ডেঙ্গুতে গত ৬ নভেম্বর পর্যন্ত ১১২ জন মারা গেছেন।

এর আগে গত ৬ নভেম্বর চলতি বছরে সারাদেশে ডেঙ্গুতে মৃতের সংখ্যা জানাতে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে এডিস মশা নির্মূলে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত।

২৮ আগস্ট এক আদেশে আদালত ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে সরকারের নেয়া কাজের অগ্রগতি জানাতে নির্দেশ দিয়েছিলেন।

ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্ক শুরু হলে ৪ জুলাই এক স্বপ্রণোদিত আদেশে ঢাকা সিটিতে ডেঙ্গু-চিকুনগুনিয়াসহ এডিস মশা নির্মূল ও ধ্বংসে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দিয়ে রুল জারি করেছিলেন হাইকোর্ট। এরপর কয়েক দফায় এ বিষয়ে শুনানি হয় এবং নির্দেশনা দেন আদালত। আদালতের আদেশে জরুরি ভিত্তিতে বিদেশ থেকে ওষুধ এনে ডেঙ্গু নিধনে কাজ করে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান।

আদালত বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর